মহিবুল ইসলাম বাঁধন ||

রাজধানী ঢাকার খিলগাঁও রেলগেট সংলগ্ন এলাকায় টক অব দ্যা কান্ট্রি ‘পেঁয়াজ’ বিক্রি শুরু করেছে সরকারি বিপণন সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ। বেশ কিছুদিন ধরেই সরকারের এ কার্যক্রম চালু রয়েছে। সকাল ১০.৩০ এর দিকে পেয়াজ ভর্তি ট্রাক খিলগাঁও এলাকায় উপস্থিত হয়।তবে অনেক আগে থেকেই ১১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কার্যালয়ের সামনে পেঁয়াজ কেনার জন্য ক্রেতাদের লম্বা লাইন হয়ে যায়। ট্রাক পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গে পেঁয়াজ কেনার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়েন লোকজন।
টিসিবির কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে ,বেশ কিছুদিন ধরেই অত্র এলাকায় টিসিবির মাধ্যমে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। প্রতিদিন এখানেই প্রচুর পেঁয়াজ বিক্রি হবে। কেজিপ্রতি ৪৫ টাকা দরে একজন সর্বোচ্চ ১ কেজি পেঁয়াজ কিনতে পারবেন।
শিহাব উদ্দীন নামে একজন বলেন, খিলগাঁও এলাকায় সন্তানকে কোচিং করাতে এসেছিলেন তিনি। ট্রাকে করে পেঁয়াজ বিক্রি করতে দেখে তিনি এক কেজি পেঁয়াজ কিনেছেন। বাজারমূল্যের চেয়ে দেড় শ টাকা কমে পেঁয়াজ কিনতে পেরেছেন বলে তিনি জানান।
বাজার মূল্যের চেয়ে প্রচুর কম দামে পেয়াজ কিনতে পেরে খুশি নিম্ন মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত পরিবারের অনেকেই। সরকারের এরকম আয়োজনে তারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।
অধিক লোকের চাপ মোকাবিলায় পুলিশ বাহিনী ও নিয়োজিত ছিলেন। কিন্তু দুর্নীতিতে ঘেরা এ দেশে পেয়াজ কিনতে আসা অনেকেই দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন। অধিকাংশের দাবি, অনেক পুলিশ কর্মকর্তা ট্রাক থেকে নিজেরা অবৈধভাবে পেয়াজ কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি বলেন- “ তারা তো সরকার থেকে রেশন পায়ই। তাহলে আমাদের মতো নিম্ন মধ্যবিত্ত মানুষের অধিকারে তারা কেনো হস্তক্ষেপ করছে? “
সাধারণ মানুষের কথার সত্যতা ফুটে উঠলো নিজ চোখেই। পুলিশের এক সদস্য পেয়াজ হাতে নিয়ে পুলিশের গাড়িতে রেখে আসছেন। পরক্ষণেই দুই পুলিশ কর্মকর্তা আলোচনা করছিলেন- “ওখান থেকে ছোট সাইজের দুই কেজি নিয়ে আমি গাড়িতে রেখে আসছি।“
দেশের দুর্নীতির এক ভয়ংকর চিত্র ফুটে উঠেছে এই এক দৃশ্যের মাধ্যমেই। স্বয়ং আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিরুদ্ধেই দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। সরকারের এই গুরুত্বপূর্ণ উদ্যোগে আইনের স্বচ্ছতা ও দুর্নীতি প্রতিরোধ করা গেলে জনসাধারণের জন্য তা মঙ্গলময় হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here