‘আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ’, এই বাক্যটি বুকে ধারণ করে বড় হয় অসংখ্য শিশু। আগামীতে ভালো কিছু করার প্রত্যয় নিয়ে বড় হতে থাকে তারা। এই পথচলায় যাতে সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা পিছিয়ে না যায় সে লক্ষ্যেই কাজ করছে এডুকো, বাংলাদেশ। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি এই শিশুরা যাতে এগিয়ে যেতে পারে জ্ঞানে, সৃজনশীলতায় সে বিষয়েও এডুকো বাংলাদেশের সমান গুরুত্ব। পাঠ্যপুস্তকের পাশাপাশি এডুকোর সকল বিদ্যালয়ে রয়েছে পাঠাগার, শিক্ষণীয় খেলাধুলার সুযোগ, বিজ্ঞান চর্চার সুযোগ, কম্পিউটার শিক্ষার সুযোগ। পাশাপাশি রয়েছে নাচ, গান, আবৃত্তি, বিতর্ক সহ সম্পূর্ণ সাংস্কৃতিক চর্চার সুযোগ। সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে এমনভাবে এগিয়ে যাওয়ার চিত্র খুব একটা দেখা যায় না বললেই চলে!

সম্প্রতি, মার্চ মাস জুড়ে এডুকোর সারাদেশের বিদ্যালয়গুলোতে অনুষ্ঠিত হলো বিতর্ক প্রতিযোগিতা। সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা তাদের নিজ নিজ বিদ্যালয়গুলোতে এ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছে। এই প্রতিযোগিতায় নির্বাচিত হওয়া সেরা বক্তাদের পুরষ্কৃত করা হয়। শুধু তাই নয়, এই শিক্ষার্থীরা পরবর্তীতে নিজের বিদ্যালয়ের বাহিরেও অন্যান্য বিদ্যালয়ের বিতার্কিকদের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবে।

এডুকো পাঠশালা মেরাদিয়া বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী, জয়নাল আবেদীন জনী তাদের বিদ্যালয়ের সেরা বক্তা হিসেবে প্রথম স্থান অধিকার করেছেন। এই শিশুটি জানান, তার জীবনে এমন সুন্দর মুহূর্ত আসতে পারে সে আগে কখনো ভাবেনি। এডুকোর প্রতি সে কৃতজ্ঞ তাকে তার প্রতিভা প্রকাশের সুযোগ করে দেয়ার জন্য।

এভাবেই আরো অসংখ্য শিক্ষার্থীর প্রতিভা বিকশিত করার সুযোগ তৈরি করছে এডুকো, বাংলাদেশ। জ্ঞানে, সৃজনশীলতায় এগিয়ে যেতে সাহায্য করছে অসংখ্য সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের। উল্লেখ্য, এডুকো একটি শিশু অধিকার ভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংস্থা। ১৯৯৯ সাল থেকে এডুকো বাংলাদেশের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here