জাকিয়া সুলতানা প্রীতি

গত ১৬মে, বৃহস্পতিবার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের এক ছাত্রীর সঙ্গে বহিরাগত এক ব্যক্তি অসদাচরণ করেছে বলে অভিযোগ করেছেন শিক্ষার্থীরা। কলেজের অধ্যক্ষের কাছে এ ঘটনার বিচার দাবি করলেও তিনি তা আমলে নেননি।

এ ঘটনার বিচার করে স্থায়ী নিরাপত্তার দাবিতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই সবরকম ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের দাবি, এ ঘটনার বিচার ও হোস্টেলের স্থায়ী নিরাপত্তা নিশ্চিত না করা পর্যন্ত ক্লাস বর্জন চলবে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা কলেজফটকের সামনে অবস্থান করছিলেন এবং শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে অধ্যক্ষ ও কলেজ প্রশাসনের সভা চলছিল। আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা জানান, গত বুধবার ইফতারের আগে মেডিকেল কলেজের একজন ছাত্রী বাইরে কাজ সেরে হোস্টেলে ফিরছিলেন। হোস্টেলের ফটকের সামনে আসার পর অপরিচিত এক বহিরাগত ব্যক্তি ছাত্রীর পথরোধ করে। ছাত্রী ওই ব্যক্তিকে পথ ছাড়ার কথা বললে ওই ব্যক্তি ছাত্রীর সঙ্গে অসদাচরণ করেন। ওই সময় ছাত্রী হোস্টেলের নিরাপত্তাকর্মীদের ডাকলেও কেউ সাড়া দেননি।

গত বুধবার রাত নয়টার দিকে এ ঘটনা জানাজানি হয়। পরে শিক্ষার্থীরা অধ্যক্ষ মো. আনোয়ার হোসেনের কাছে বিচার চান। আনোয়ার হোসেন শিক্ষার্থীদের এ ঘটনা চেপে যেতে বললে শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। বৃহস্পতিবার সকাল আটটা থেকে ক্লাস হওয়ার কথা থাকলেও শিক্ষার্থীরা আটটার আগে ক্যাম্পাসে গিয়ে শিক্ষা ভবনের ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেন। পরে ক্লাস বর্জন করে ফটকের সামনে বিক্ষোভ করেন তাঁরা।

বিক্ষোভকারী কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে ছাত্রী ও ছাত্রদের হোস্টেলের নিরাপত্তার এ সমস্যা দীর্ঘদিনের। বিভিন্ন সময়ে হোস্টেলের নিরাপত্তা সমস্যার সমাধানের দাবি জানানো হলেও কর্তৃপক্ষ এ দাবি মানছে না

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here