জাকিয়া সুলতানা প্রীতি

আত্মোৎসর্গকারী বলতে, যিনি কোন মহৎ উদ্দেশ্যে নিজ প্রাণ উৎসর্গ করেন, তাকে বুঝায়। ফায়ারম্যান সোহেল রানা তারই এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

বনানীর এফআর টাওয়ারে লাগা আগুন নেভাতে গিয়ে গুরুতর আহত ফায়ারম্যান সোহেল রানা সিঙ্গাপুরে একটি হাসপাতালে চিকিৎধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

৮ এপ্রিল, সোমবার স্থানীয় সময় ভোর ৪টা ১৭ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় রাত ২টা ১৭ মিনিট) তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ৫ এপ্রিল সন্ধ্যায় এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে সোহেলকে সিঙ্গাপুর নেওয়া হয়। এর আগে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল।

গত ২৮ মার্চ ফায়ার সার্ভিসের উঁচু ল্যাডারে (মই) উঠে আগুন নেভানো ও আটকে পড়া ব্যক্তিদের উদ্ধারকাজ করছিলেন কুর্মিটোলা ফায়ার স্টেশনের ফায়ারম্যান সোহেল রানা। একপর্যায়ে তার শরীরে লাগানো নিরাপত্তা হুকটি মইয়ের সঙ্গে আটকে যায়। তিনি মই থেকে পিছলে পড়ে বিপজ্জনকভাবে ঝুলছিলেন। সেখানে আঘাতে তার একটি পা ভেঙে যায়। তখন তাকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া হয়।

ছবি: অনলাাইন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here